মুন্সীগঞ্জে পুলিশের সঙ্গে বন্দুক যুদ্ধে ২১ মামলার আসামী রিংকু নিহত : গুলিবিদ্ধ সহ আহত ৩ পুলিশ

শেখ মোহাম্মদ রতন, সমকালীন মুন্সীগঞ্জ :
মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ২১ মামলার আসামী রিংকু (৩৫) নামের অস্ত্রধারী শির্ষ সন্ত্রাসী আন্ত:জেলা নৌ-ডাকাতের সঙ্গে পুলিশের সঙ্গে বন্দুক যুদ্ধে নিহত হয়েছে।
শুক্রবার দুপুরে চরাঞ্চলের বাংলাবাজার ও আধারা ইউনিয়নের মিঝিকান্তিতে এ ঘটনা ঘটে।
পুলিশের সঙ্গে বন্দুক যুদ্ধে নিহত রিংকুর মৃতদেহ সদর থানা পুলিশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল নিয়ে আসে বলে নিশ্চিত করেছেন জেলা পুলিশ।বন্দুক যুদ্ধ চলাকালীন সময় এস আই সঞ্জয় (৩২) গুলিবিদ্ধ হয়। এ সময় আরো ২জন পুলিশের এ এস আই গুরুতর আহত হয়।
জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত ডাক্তার গুলিবিদ্ধ পুলিশের এসআই সঞ্জয়কে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল হাসপাতাল প্রেরণ করেছে।বাকি দুই পুলিশ সদস্যকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল ভর্তি করা হয়েছে।
মুন্সীগঞ্জ সদর থানা পুলিশ জানায়, ২১ মামলার আসামী রিংকু (৩৫) নামের শির্ষ সন্ত্রাসী আন্ত:জেলা নৌ-ডাকাতকে গ্রেফতার করতে পুলিশের একটি দল সদর উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের দেওয়ান কান্দি গ্রামে উপস্থিত হয়।

এ সময় রিংকু ও তার সন্ত্রাসী বাহিনি পুলিশের উপর গুলিবর্ষন করলে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়লে রিংকু নিহত হয়। এ সময় এক পুলিশ গুলিবিদ্ধসহ ৩ জন আহত হয়।

এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। পুলিশের সঙ্গে বন্দুক যুদ্ধে নিহত সন্ত্রাসী রিংকু সদর উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের দেওয়ান কান্দি গ্রামের জসিম দেওয়ানের ছেলে।

মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আলমগীর হোসাইন জানান, পলাতক আসামী রিংকুকে ধরতে গেলে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে রিংকু গুলি চালায়।  এতে গুলিবিদ্ধসহ আমাদের ৩ পুলিশ সদস্য আহত হয়।