এবার পদ্মায় বিলীন শিমুলিয়ার ৪ নম্বর ফেরিঘাট

সমকালীন মুন্সীগঞ্জ ডেক্স, ৬ আগষ্ট ২০২০:

প্রমত্তা পদ্মার তীব্র স্রোতে বিলীন হয়ে গেছে মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়ার চার নম্বর ফেরিঘাট। এর আগে ২৮ জুলাই বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) তিন নম্বর রোরো ফেরিঘাট তীব্র স্রোতে বিলীন হয়ে যায়।

দুর্ঘটনা এড়াতে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরিসহ সব নৌযান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) সকালে বিআইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক সাফায়েত আহমেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, বুধবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে পদ্মায় তীব্র ঘূর্ণিস্রোতের কারণে শিমুলিয়া ঘাটে ভাঙন শুরু হয়। ভোর সাড়ে ৫টার দিকে চার নম্বর ফেরি ঘাটটি (ভিআইপি) পদ্মা নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায়। ভাঙন শুরু হবার পরপরই রাতেই এ ঘাটের পন্টুন নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। শিমুলিয়ায় চারটি ফেরিঘাটের মধ্যে তিন নম্বর রোরো ফেরি ঘাটটি গত ২৮ জুলাই বিলীন হয়।

চারটি ঘাটের মধ্যে টিকে রইলো ১ ও ২ নম্বর ফেরিঘাট। এ দুইটি ফেরিঘাটও পদ্মার ভাঙন ঝুঁকিতে রয়েছে। ভাঙন আতঙ্কে বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে সব ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

মাওয়া ঘাটের ট্রাফিক ইনচার্জ (টিআই) হিলাল উদ্দিন জানান, শিমুলিয়া ঘাট এলাকায় ছোট-বড় মিলিয়ে শতাধিক যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। যাত্রী দুর্ভোগ বেড়েছে। এখনও ভাঙন অব্যাহত।